বিলাসবহুল হোটেলে ১০২ দিন, ১২ লাখ বিল না দিয়েই ফেরার

বিলাসবহুল হোটেলে ১০২ দিন, ১২ লাখ বিল না দিয়েই ফেরার

নামী হোটেলে আস্তানা গেড়েছিলেন বহাল তবিয়তে কিন্তু প্রায় ১০০ দিন রাজার হালে কাটানোর পর বিল না দিয়েই চম্পট হয়ে গেলেন ব্যবসায়ী। ১০০ দিনের ভাড়া বাবদ হোটেলের বিল হয়েছিল ১২.৩৪ লক্ষ টাকা।

শনিবার (১০ আগস্ট) এমনই এক ঘটনার কথা হায়দরাবাদ পুলিশের সামনে এসেছে। ঘটনায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেছে হোটেল কর্তৃপক্ষ।

হায়দরাবাদের একটি নামী হোটেল তাজ বাঞ্জারা। এই হোটেলেই ১০০ দিনের জন্য আস্তানা গেড়েছিলেন বিশাখাপত্তনমের ব্যবসায়ী এ শঙ্কর নারায়ণ। হোটেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, হোটেলের একটি ঘরে ১০০ দিনের জন্য ছিলেন ওই ব্যবসায়ী। এই কদিনে তার হোটেল বিল হয় ২৫.৯৬ লক্ষ টাকা।

কিন্তু সেই জায়গায় ১৩.৬২ লক্ষের বিল মেটান ব্যবসায়ী। বাকি টাকা না মিটিয়েই হোটেল থেকে চম্পট দেন তিনি। চলতি বছরের এপ্রিলে হোটেল পরিত্যাগ করেন তিনি। পরে হোটেলের এক কর্মী যোগাযোগ করারও চেষ্টা করেন ওই ব্যক্তির সঙ্গে। যাকে টাকা মিটিয়ে যাবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তিনি।

কিন্তু তাকে বারবার ফোনে চেষ্টা করা হলেও নাগাল পাওয়া যায়নি ওই ব্যক্তির। বারবারই তার ফোন বন্ধ পেয়েছেন হোটেল কর্তৃপক্ষ। ফলে বাধ্য হয়েই ঘটনায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করেন তাজ বাঞ্জারা কর্তৃপক্ষ। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা২৪।

তাজ বাঞ্জারা কর্তৃপক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। সাব ইনস্পেক্টর পি রবি জানিয়েছেন, আমরা হোটেল কর্তৃপক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছি।