শপথের পর কাদেরের সঙ্গে বিএনপির জিএম সিরাজের কোলাকুলি

শপথের পর কাদেরের সঙ্গে বিএনপির জিএম সিরাজের কোলাকুলি

বগুড়া-৬ আসনের উপনির্বাচনে জয়ী বিএনপির গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিয়েছেন। তার শপথের ফলে সংসদে বিএনপির আসন সংখ্যার কোনো হেরফের হচ্ছে না, কারণ ওই আসনে তার দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে বিজয়ী হলেও শপথ নেন নি বলে উপনির্বাচন হয়।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) শিরীন শারমিন চৌধুরী জাতীয় সংসদ ভবনে তার কার্যালয়ে জিএম সিরাজকে শপথ বাক্য পাঠ করান।

শপথ নেওয়ার পর জি এম সিরাজ রীতি অনুযায়ী শপথ বইয়ে স্বাক্ষর করেন।

এদিন শপথ গ্রহণের পর সংসদ ভবনের প্রবেশ মুখে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে কোলাকুলি করেন বিএনপির সংসদ সদস্য গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ। এ সময় তিনি নিজে এগিয়ে গিয়ে কুশল বিনিময় করেন।

জিএম সিরাজের সঙ্গে ছিলেন বিএনপির মিডিয়া উইং সদস্য শায়রুল কবির খান।

শায়রুল কবির খান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘জিএম সিরাজ শপথ গ্রহণ করেন বেলা সাড়ে ৩টার দিকে। শপথ শেষ করে অন্যান্য আনুষাঙ্গিক কাজ ছিল। সেগুলো শেষ করে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় প্রবেশ মুখে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে দেখা হয় জিএম সিরাজের। এরপর উভয়ে কুশল বিনিময় ও কোলাকুলি করেন।’

বিএনপির গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ উপ-নির্বাচনে বগুড়া-৬ আসন থেকে বিজয়ী হয়েছেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এই আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি শপথ না নেওয়ায় আসনটি শূন্য ঘোষিত হলে গত ২৪ জুন উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

শপথ অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী, হুইপ ইকবালুর রহিম, হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ বি তাজুল ইসলাম, বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ, আমিনুল ইসলাম, মোশাররফ হোসেন, জাহিদুর রহমান জাহিদ এবং রুমিন ফারহানা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বগুড়া সদর আসনটিতে গত ২৪ জুন অনুষ্ঠিত উপনির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে জি এম সিরাজ পান ৮৯ হাজার ৭৪২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী এস এম টি জামান নিকেতা নৌকা প্রতীকে পান ৩২ হাজার ২৯৭ ভোট।





error: Content is protected !!