বাড়ছে মুসলিমদের সংখ্যা, মসজিদ সংকটে রাশিয়া

বাড়ছে মুসলিমদের সংখ্যা, মসজিদ সংকটে রাশিয়া

রাশিয়া বাড়ছে মুসলিমদের জনসংখ্যা। নামাজ আদায়ে মসজিদের সংকট রয়েছে সেখানে। দিন দিন মুসলিম সংখ্যা বাড়া এ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

২০৩৪ সালে রাশিয়ায় মুসলিমরা হবে মোট জনসংখ্যা ৩০ ভাগ। এমনটি জানিয়েছেন রাশিয়ার গ্র্যান্ড মুফতি রাভিল জাইনুদ্দিন।

তিনি বলেন, মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধির অর্থ হলো, রাশিয়া মুসলিমদের নামাজ আদায়ে আরো অনেক মসজিদ নির্মাণ করতে হবে।

এ ধারা অব্যাহত থাকলে ২০৫০ সালে মুসলিমরাই হবে সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগোষ্ঠী। এ বিষয়ে গ্যান্ড মুফতি রাভিল জাইনুদ্দিনের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন দেশটির অর্থোডক্স চার্চের প্রধান যাজক দিমিত্রি স্মির্নভ।

গত সোমবার রাশিয়ার ফেডারেল অ্যাসেম্বলির নিম্নকক্ষে ‘স্টেট ডুমা’ আয়োজিত এক ফোরামে তিনি এ তথ্য তুলে ধরন। খবর দ্য মস্কো টাইমস।

গ্র্যান্ড মুফতি রাভিল জাইনুদ্দিন জানান, ২০১৮ সালে রাশিয়ার মসজিদগুলোতে প্রায় ৩২ লাখ মুসলিম অংশগ্রহণ করে। তিনি আরো জানান, রাশিয়ায় বর্তমানে মুসলিম সংখ্যা ২৫ মিলিয়ন।

২০১৮ সালের হিসাব অনুযায়ী রাশিয়ায় ১৪ থেকে ২০ কোটি মুসলমানের বসবাস। যা রাশিয়ারমোট জনসংখ্যার ১০ থেকে ১৪শতাংশ। রাশিয়ার মোট জনসংখ্যা ছিল ১৪৬.৮ মিলিয়ন।

উল্লেখ্য যে, রাশিয়ায় নর্থ কাউকাসুস এবং তাতারস্তান প্রজাতন্ত্রে উচ্চহারে মুসলিম জনসংখ্যা বাড়ছে। নর্থ কাউকাসুস ও তাতারাস্তান অঞ্চল দুটি দেশটির মুসলিম প্রধান অঞ্চল হিসেবে পরিচিত।

এছাড়াও রাশিয়ার রাজধানী মস্কোসহ সেন্ট পিটার্সবার্গ এবং ইয়েকাতেরিনবার্গ মুসলিমদের আধিক্য রয়েছে। এসব অঞ্চলে মধ্য এশিয়াসহ অন্যান্য অঞ্চল থেকে অভিবাসী হিসেবে আসা মুসলমানের সংখ্যাও বেশি।

মুসলিমদের সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সেভাবে মসজিদ গড়ে ওঠেনি। তাই রাশিয়ার বিভিন্ন শহরে অধিক পরিমাণে মসজিদ নির্মাণ জরুরি বলে জানান গ্র্যান্ড মুফতি রাভিল জাইনুদ্দিন।





error: Content is protected !!