মিলনের বিছানায় বাজিমাত করতে পারে আপনার এই পাঁচটি কথা

মিলনের বিছানায় বাজিমাত করতে পারে আপনার এই পাঁচটি কথা

“সে আর কিছুই বলেনি”। এই চারটে শব্দই আমার বোঝার জন্য যথেষ্ট ছিল যে কেন আমার প্রিয় বান্ধবীর তার পছন্দের মানুষের সঙ্গে গতকাল

রাতে ঘনিষ্ঠ হওয়ার পরও মন এতোটা খারাপ ছিল। আমি অবশ্যই জানি, কারণ আমি নিজেও একই পরিস্থিতির শিকার হয়েছিলাম। নিজের

সঙ্গীর সঙ্গে এক বিছানায় থাকাকালীন আপনার এই ছোট ছোট অনুভূতিগুলো অবশ্যই খেয়াল করা উচিত। এটা একটা না বলা নিয়ম। আর একটা না বলা নিয়ম হল অবশ্যই এই কথা গুলো ঘনিষ্ঠ মুহূর্তে নিজের সঙ্গীকে জানানো।

সামান্য কয়েকটা কথাও অরগ্যাজম বাড়াতে অত্যন্ত কার্যকর ভূমিকা পালন করে। আর কিছু কিছু জিনিস ঠিক সময় ঠিক জায়গায় পৌঁছনো দরকার। এই কথাগুলো পরের বার নিজের সঙ্গীকে ঘনিষ্ঠ মুহূর্তে অবশ্যই জানিয়ে রাখবেন।

“তুমি দারুণ!”

হ্যাঁ তারা এটা শুনতে চায়। পুরুষ এবং মহিলা উভয়েই নিজেদের গোপনাঙ্গ তার সঙ্গীর কাছে কীভাবে উপস্থাপিত হল সে বিষয়ে অত্যন্ত সতর্ক। তাই আপনার সঙ্গীকে জানান, সবই দারুণ! গোটা বিষয়টাই আপনি উপভোগ করেছেন।
ওহ মাআআআআআআই গড ​

দুঃখের সঙ্গে নয়, বরং আপনার সঙ্গীর সঙ্গে বিছানায় যে মুহূর্তেই আপনি পরিতৃপ্ত হবেন, তখনই আপনার সঙ্গীকে জানাবেন। এর ফলে তিনি আরও বেশী উৎসাহ পাবেন। ফলে আপনাদের দুজনেরই ঘনিষ্ঠতার মুহূর্তগুলো চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

“আমার দারুণ লাগে যখন তুমি…”
এর ফলে আপনার সঙ্গী বুঝতে পারবে আপনার ঠিক কী পছন্দ এবং তার নিজের ঠিক কীভাবে কী করা উচিত। এবং একইভাবে তাকে বুঝতে দিন আপনি কোন কাজটা ভালভাবে করতে পারেন! আর তারপর দেখুন, আপনাকে আরাম দিতে কীভাবে সে ওই কাজটাকে নিজের ব্যক্তিগত মিশনে পরিণত করছে!

“*তার নাম*”
এটা অনেকদিন আগের কথা যে, পুরুষ সঙ্গীকে নাম ধরে ডাকা যাবে না, কত পুরোনো তা আমাদের মনেও নেই। তাই চরম উত্তেজনার মুহূর্তকে আরও স্পেশাল করে তুলতে সঙ্গীর নাম ধরে ডাকুন। বিশ্বাস করুন, আপনার সঙ্গীরও পছন্দ হবে।

“ধন্যবাদ”

যৌন মিলনের পর স্পেশাল মুহূর্তগুলো নিয়ে সঙ্গীর সঙ্গে আলোচনা করুন। আপনার কতটা ভালো লেগেছে আপনার সঙ্গীকে জানান। কৃতজ্ঞতা জানান এবং পরবর্তী মিলনের জন্য সঙ্গীর কাছে উৎসাহ প্রকাশ করুন। মুহূর্তটাকে গুরুত্ব দিন। সত্যিই এগুলো পরেও শুনতে দারুণ লাগে।





error: Content is protected !!