শবে বরাতের ছুটি ২২ এপ্রিল

শবে বরাতের ছুটি ২২ এপ্রিল

পবিত্র শবে বরাতের ছুটি ২১ এপ্রিলের পরিবর্তে ২২ এপ্রিল পুনর্নির্ধারণ করেছে সরকার। নির্বাহী আদেশে বুধবার এক প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য জানিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

২০১৯ সালের ছুটির বর্ষপঞ্জি অনুযায়ী, ৭ এপ্রিল শাবান মাস শুরু ধরে ২১ এপ্রিল শবে বরাতের সরকারি ছুটি নির্ধারিত ছিল। সাধারণত শবে বরাতের পরের দিন সরকারি ছুটি থাকে। কিন্তু এবার রজব মাস ৩০ দিনে শেষ হয় এবং শাবান মাস শুরু হয় গত ৮ এপ্রিল। সেই হিসাবে এবার শবে বরাতের রাত হবে ২১ এপ্রিল। এ জন্য শবে বরাতের ছুটি পুনর্নির্ধারণ করে ২২ এপ্রিল করা হয়েছে।

খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বীদের দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব ইস্টার সানডে উপলক্ষে ২১ এপ্রিল (রোববার) বাংলাদেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি থাকবে। অন্যদিকে শবে বরাতের ছুটি ২২ এপ্রিল (সোমবার)। তবে শবে বরাতের তারিখ নিয়ে বিভ্রান্তি থাকায় ফের বৈঠকে বসার সিদ্ধান্ত নেয় চাঁদ দেখা কমিটি। এতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো টানা দুদিন ছুটি পাবে কিনা তা নিয়ে সংশয় দেখা দেয়।

তবে মঙ্গলবার চাঁদ দেখা কমিটি জানিয়েছে শবে বরাত ২১ এপ্রিলই থাকছে। ফলে সোমবার সারাদেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। এতে রবি ও সোমবার দুদিন ছুটি পাচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো।

জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২১ এপ্রিলই পবিত্র শবে বরাত পালিত হবে বলে জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।

এর আগে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি গত ৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বায়তুল মোকাররম সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় দেশের সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়, আবহাওয়া দফতরের সব কার্যালয়, মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে প্রাপ্ত তথ্য পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত হয় যে, বাংলাদেশের আকাশে কোথাও শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। সে হিসাবে ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে সারাদেশে পবিত্র শবে বরাত উদযাপন হবে।

এরপর দেশের আকাশে সেদিন চাঁদ দেখা গেছে এমন তথ্য প্রকাশিত হলে বিতর্ক দেখা দেয়। এমন অবস্থায় দফায় দফায় বৈঠক শেষে ১১ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। এখন এই কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে আগের ঘোষণাই ঠিক রইল।





error: Content is protected !!