বাবার বিয়ে, চিরকুটে যা লিখে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

বাবার বিয়ে, চিরকুটে যা লিখে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

লক্ষীপুরের রায়পুরে বাবার উপরে অভিমান করে এক কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। নিহত ওই কলেজ ছাত্রীর নাম- মাহমুদা আক্তার (১৯)।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে উপজেলার দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের চরবংশী গ্রাম থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মাহমুদা ওই গ্রামের হারুন জমাদ্দারের মেয়ে ও হায়দরগঞ্জ মডেল কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী।

বাবার বিয়ে মেনে নিতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। সেই সাথে একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে। মৃত্যুর আগে মাহমুদা চিরকুট লিখে আত্মহত্যা করেছে বলে দাবি পুলিশের।

মূলত বেদে নারীকে বিয়ে করায় বাবার ওপর অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে ওই ছাত্রী।

পুলিশ জানায়, মাহমুদার বাবা হারুন সম্প্রতি এক বেদে নারীকে বিয়ে করে। কিন্তু মেয়েটি বাবার এ বিয়েটি মেনে নিতে পারেনি। এতে দুপুরে ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে তার মরদেহ উদ্ধার করে হাজিমারা পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে আসা হয়। এ সময় তার লেখা একটি চিরকুট উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে লেখা ছিল, তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়।





error: Content is protected !!