স্বামী-স্ত্রীর বিচ্ছেদের জন্যও মির্জা ফখরুল সরকারকে দায়ী করবেনঃ তথ্যমন্ত্রী

স্বামী-স্ত্রীর বিচ্ছেদের জন্যও মির্জা ফখরুল সরকারকে দায়ী করবেনঃ তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, কয়েকদিন পর থেকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিচ্ছেদ হলে সেটার জন্যও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল সরকারকে দায়ী করবেন। সবকিছুতে রাজনীতিকরণের অপচেষ্টা অহেতুক, যা রাষ্ট্র গঠন ও সমাজ গঠনে অন্তরায়।

রাজধানীর চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের জন্য বিএনপি মহাসচিব সরকারের অব্যবস্থাপনাকে দায়ী করা প্রসঙ্গে শুক্রবার জাতীয় শিল্পকলা একাডেমিতে এক অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী এমন মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, কাশ্মীরে যখন ভারতের আধাসামরিক বাহিনীর চল্লিশজন জোয়ান নিহত হলো তখন সেখানকার সব রাজনৈতিক দল ঘোষণা করল তারা সরকারের সঙ্গে আছে। এ দুর্যোগ কাটিয়ে উঠার ক্ষেত্রে তারা সরকারকে সাহায্য করব। সরকার যে পদক্ষেপ নিবে তারা তার সঙ্গে একমত পোষণ করবে।

হাছান মাহমুদ আরও বলেন, মির্জা ফখরুল সাহেব যদি বলতেন, এটা একটি দুর্যোগ। আমরা এটা কাটিয়ে উঠার জন্য সরকারের সঙ্গে আছি। তাহলে তা হতো দায়িত্বশীল বিরোধী দলের আচরণ। তারা সরকারকে সাহায্য করার দরকার নেই, শুধু এ কথা বললেই আমরা বুঝতাম এটা দায়িত্বশীল বিরোধী দলের আচরণ।

বিএনপিকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আপনারা এখনও দুর্ঘটনাস্থলে যাননি। না গিয়েই বক্তৃতা বিবৃতি দিচ্ছেন। সরকারের সমালোচনা করছেন। সেখানে গিয়ে তাদের পাশে দাঁড়ান।

বিএনপি’র গণশুনানি কর্মসূচি সম্পর্কে তথ্যমন্ত্রী বলেন, গণশুনানি একটি নাটক। দেশের এই পরিস্থিতিতে, দেশের সব মানুষ যখন শোকাহত, তখন আমি আশা করব আপনারা এই কর্মসূচি স্থগিত করবেন। আর স্থগিত না করলে বুঝব আপনারা দেশের মানুষের চেতনার সঙ্গে অনুভূতির সঙ্গে একমত নন।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিএনপি যখন জ্বালাও পোড়াও করেছিল, পেট্রোল সন্ত্রাস চালিয়েছিল, তখন তা ছিল ঘটনা। আর চকবাজারে যেটা হয়েছে সেটা দুর্ঘটনা। চকবাজারের ঘটনার পেছনে কে বা কারা দায়ী- কেন এমন ঘটনা ঘটল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও দাবি করেন হাছান মাহমুদ।