চীনের পোর্ট ভিসা সুবিধা পাচ্ছে বাংলাদেশিরা

চীনের পোর্ট ভিসা সুবিধা পাচ্ছে বাংলাদেশিরা

বাংলাদেশের সাধারণ নাগরিকেরা এখন থেকে চীনে ভ্রমণের ক্ষেত্রে পোর্ট ভিসা অথবা ভিসা অন অ্যারাইভাল সুবিধা পাবেন। এই ভিসার মেয়াদ ৩০ দিন।

বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী নাগরিকদের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার চীনা দূতাবাস এই সুবিধা দিয়েছে। এখন থেকে শর্তসাপেক্ষে চীনে প্রবেশমাত্রই (অন–অ্যারাইভাল) ভিসা পাবেন বাংলাদেশিরা।

বৃহস্পতিবার( ৫ ডিসেম্বর) দেশটির পোর্ট ভিসা ব্যবস্থা সম্পর্কে ব্যাখ্যা দিয়ে এক বিবৃতি দিয়েছে ঢাকার চীনা দূতাবাস।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এখন থেকে জরুরি মানবিক প্রয়োজন, বাণিজ্যিক কাজ, প্রকল্প মেরামত, পর্যটন বা অন্য কোনো জরুরি কাজের জন্য

চীনে ‘পোর্ট ভিসা’ সহজেই পাওয়া যাবে। চীনে ভ্রমণের জন্য সে দেশের পর্যটন সংস্থাগুলোর মাধ্যমে যেতে হবে। বাণিজ্যিক কাজ, প্রকল্পের মেরামত বা অন্য কোনো জরুরি কাজের জন্য কোনো চীনা পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ পেতে হবে।

ঢাকায় চীনা দূতাবাসের রাজনৈতিক কাউন্সিলর চেন ওয়েই এ প্রসঙ্গে গণমাধ্যমকে বলেছেন, বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিকদের সুবিধার্থে

‘পোর্ট-ভিসাব্যবস্থা’ তথা ‘অ্যারাইভাল ভিসা’ দেওয়ার ব্যবস্থা চালু করেছে চীন সরকার। গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের বহিরাগমন ও প্রবেশ প্রশাসন আইন অনুযায়ী এই ব্যবস্থা কোনো নির্দিষ্ট রাষ্ট্রের নাগরিকদের জন্য করা হয়নি।

তিনি আরও বলেন, মানবিক কারণে চীনে জরুরি প্রবেশ, আমন্ত্রণক্রমে জরুরি বাণিজ্যিক কাজে আসা, প্রকল্পের মেরামত বা অন্য জরুরি

কাজে চীনে আসা এবং পর্যটন এজেন্সির মাধ্যমে চীন ভ্রমণে আগ্রহী বিদেশিদের সুবিধার্থে এ ‘পোর্ট-ভিসাব্যবস্থা’ চালু করা হয়েছে। এ ব্যবস্থা

অনুসারে, বিদেশিরা শর্তসাপেক্ষে চীনের বিমানবন্দরে এসে ‘পোর্ট ভিসা’র জন্য আবেদন করতে পারবেন। এই ভিসার মেয়াদ হবে সর্বোচ্চ ৩০ দিন।

বাংলাদেশিরাও প্রয়োজনীয় শর্ত পূরণ করে এবং সংশ্লিষ্ট কাগজপত্র দাখিল করে চীনের বিমানবন্দর থেকে এই ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন।