দলীয় প্রার্থীকে জায়গা দিয়ে সরে দাঁড়ালেন বিএনপির ৪ প্রার্থী

দলীয় প্রার্থীকে জায়গা দিয়ে সরে দাঁড়ালেন বিএনপির ৪ প্রার্থী

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাগেরহাটের ৪টি সংসদীয় আসন থেকে বিএনপির চারজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। দলীয় প্রার্থীকে জায়গা দিয়ে রোববার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে সরে দাঁড়ান তারা।

জেলার ৪টি আসনে বিএনপির দুইজন করে প্রার্থী থাকায় এ সিদ্ধান্ত নেন চার প্রার্থী। বাগেরহাট ১ ও ২ আসনে বিএনপি দুই নেতা এবং বাগেরহাট ৩ ও ৪ আসনে জামায়াতের দুই নেতাকে দলীয় প্রার্থী মেনে নিয়ে সরে দাঁড়ান তারা।

বিএনপির এ চারজন প্রার্থী সরে গেলেও জেলার ৪টি আসনে এখনো প্রার্থী রয়েছেন ২২ জন। তবে প্রতিটি আসনে বর্তমানে বিএনপির একক প্রার্থী রয়েছেন। বাগেরহাট-১ (ফকিরহাট-মোল্লাহাট ও চিতলমারী) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন বর্তমান এমপি শেখ হেলাল উদ্দিন, তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মাসুদ রানা, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মো. লিয়াকত আলী শেখ ও মুসলিম লীগের প্রার্থী এমডি শামসুল হক।

বাগেরহাট-২ (বাগেরহাট সদর ও কচুয়া) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শেখ সারহান নাসের তন্ময়, বিএনপির প্রার্থী এমএ সালাম, সিপিবির প্রার্থী সেকেন্দার আলী, স্বতস্ত্র প্রার্থী এসএম আজমল হেসেন ও রেজাউর রহমান মন্টু, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মো. আব্দুল আওয়াল ও জাকের পার্টির প্রার্থী খান আরিফুর রহমান।

বাগেরহাট-৩ (রামপাল ও মংলা) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান এমপি হাবিবুন নাহার তালুকদার, বিএনপির প্রার্থী জেলা জামায়াতের নায়েবে আমির মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াদুদ সেখ, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী হাফেজ মাওলানা শাহজালাল সিরাজী, জাকের পার্টির প্রার্থী মো. রেজাউল শেখ ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী মো. সেকেন্দার আলী মনি।

বাগেরহাট-৪ (মোরেলগঞ্জ ও শরণখোলা) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ডা. মোজাম্মেল হোসেন, বিএনপির প্রার্থী জেলা জামায়াতের নেতা অধ্যক্ষ আব্দুল আলীম, জাতীয় পার্টির সোমনাথ দে, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মাওলানা আব্দুল মজিদ, সিপিবির প্রার্থী শরীফুজ্জামান তালুকদার ও বিএনএফ’র প্রার্থী মো. রিয়াদুল ইসলাম আফজাল।