১৮ হাজার মানুষ সেলফ কোয়ারেন্টিনে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

সারাদেশে এখন প্রায় ১৮ হাজার মানুষ সেলফ কোয়ারেন্টিনে আছেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

করোনা নিয়ে মানুষকে আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, ইতোমধ্যে আমাদের করোনো শনাক্তকরণে ১ লাখ কিট হাতে আছে। সুতরাং করোনা পরীক্ষা নিয়ে মানুষকে আতঙ্কিত করাটা আর ঠিক হবে না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দাবি, অন্যান্য দেশের চেয়ে বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি অনেক ভালো। আমরা যদি সেফল কোয়ারেন্টাইন বা প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন যথাযথভাবে নিতে পারি তাহলে ভয়ের কিছু নেই, করোনা ছড়াতে পারবে না।

সরকারের নেয়া বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ে আমরা আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়েছি। জেলা পর্যায়ে ডিসি, এসপি, ইউনিয়ন পর্যায়ে চেয়ারম্যান, মেম্বাররা কাজ করছেন। সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, কমিশনাররাও করোনায় সচেতনতা বাড়াতে কাজ করছেন।

বিদেশফেরত ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টিন মানার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, করোনা সংক্রমণের পর যারা বিদেশ থেকে এসেছেন, তারা পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। জোর করে তাদের ধরে আনা হচ্ছে। কিন্তু তারা যদি নিজেরাই কোয়ারেন্টিনে থাকেন তাহলে আমরা তাদের সেবা দিতে পারব, তাদের পরিবারকেও রক্ষা করতে পারব। কিন্তু পালিয়ে বেড়ালে কোনোটাই সম্ভব না।

চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস থাবা বসিয়েছে বাংলাদেশেও। বাংলাদেশে এ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ৮ মার্চ। এরপর দিন দিন এ ভাইরাসে সংক্রমণের সংখ্যা বেড়েছে। সর্বশেষ হিসাবে দেশে এখন পর্যন্ত ২৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন, যারা কোয়ারেন্টিনে আছেন। আর মারা গেছেন দুজন।

নিউজ সোর্স: যুগান্তর

Comments are closed.