News Headline :
করোনা সচেতনতা তৈরিতে মাস্ক ও লিফলেট বিতরণ করলো নাগেরপাড়া ইউনিয়নের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা করোনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ১০ নির্দেশনা জারি করোনায় মৃত ব্যক্তির জানাজা-দাফন নিয়ে ইফা’র নির্দেশনা ‘চিকিৎসকদের সুরক্ষা না দিলে কারও শেষ রক্ষা হবে না’ করোনাভাইরাস: মঙ্গলবার থেকে বাংলাদেশে সেনা মোতায়েন, চৌঠা এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি, অফিস বন্ধ ২৬ মার্চ থেকে ১০ দিনের সাধারণ ছুটি জাতির উদ্দেশ্যে ভাষন দিবেন প্রধানমন্ত্রী করোনা ভাইরাস: দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করোনা পরিস্থিতি শিথিল না হওয়া পর্যন্ত কিস্তি আদায় বন্ধ অনির্দিষ্টকালের জন্য পাসপোর্টের বায়োমেট্রিক প্রক্রিয়া স্থগিত
করোনা থেকে মুক্তির জন্য তওবার আহ্বান শীর্ষ আলেমদের

করোনা থেকে মুক্তির জন্য তওবার আহ্বান শীর্ষ আলেমদের

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য দেশবাসীর প্রতি তওবার আহ্বান জানিয়েছেন দেশের শীর্ষ আলেমরা। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আল্লাহ উপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস বজায় রেখে আতংকিত না হয়ে সতর্কতামূলক যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

রোববার কওমি মাদ্রাসার সর্বোচ্চ কর্তৃপক্ষ আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশের পাঠানো এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানান শীর্ষ আলেমরা।

বিবৃতিতে বলা হয়, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস যে জটিল ও বিপদজনক আকার ধারণ করেছে তা নিঃসন্দেহে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের একটি পরীক্ষা ও আজাব। এটা মানুষের কৃতকর্মের ফল। আল্লাহ তায়ালা এর দ্বারা মুমিনদের ঈমানের পরীক্ষা নিচ্ছেন।

ঈমানের দাবি হল কোনো বিপদাপদের আভাস পেলেই মুমিন নিজের গুনাহের জন্য অনুতপ্ত হয়ে তা বর্জন করবে, আল্লাহর দিকে রুজু হবে, নামাজে দাঁড়িয়ে যাবে এবং তাওবা ও ইস্তিগফার করবে।

তাই বর্তমান পরিস্থিতিতে দায়িত্বশীলগণের পক্ষ হতে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বানের পাশাপাশি গুনাহ, পাপাচার, অশ্লীলতা, বেহায়াপনা ও অন্যায়-অবিচার বর্জনের প্রতি আহ্বানও আসা উচিত।

এ মুহূর্তে করণীয় হিসেবে বিবৃতিতে শীর্ষ আলেমরা বলেন, সর্বপ্রথম যাবতীয় গুনাহ ও পাপাচার বর্জন করা এবং আল্লাহর নিকট অতীত গুনাহের জন্য তাওবা ও ইস্তিগফার করা। পাঁচ ওয়াক্ত মসজিদের জামাতে ও জুমায় শরিক হওয়া এবং আল্লাহর নিকট এ আজাব হতে মুক্তির জন্য দোয়া করা। ফিতনার সময়ের জন্য হাদীসে বর্ণিত দোয়া ও আমলসমূহ সপরিবারে করা; অধিক পরিমাণে দোয়ায়ে ইউনুস পাঠ করা। আল্লাহ উপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস বজায় রেখে, আতংকিত না হয়ে সতর্কতামূলক যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা।

এ ছাড়া যারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বা যাদের আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ আছে তাদের জনসমাগম ও মসজিদের জামাত থেকেও বিরত থাকার আহ্বান জানানো হয়।

বিবৃতিতে স্বাক্ষরকারী আলেমরা হলেন আল্লামা শাহ আহমদ শফি, চেয়ারম্যান, আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশ, মাওলানা আব্দুল কুদ্দুছ, কো-চেয়ারম্যান, আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশ, মাওলানা আব্দুল হালীম বুখারী, মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ, মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমী, মুফতি ওয়াক্কাস, মাওলানা আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী হুজুর, মাওলানা রুহুল আমীন, মাওলানা আরশাদ রাহমানী, মাওলানা মাহফুজুল হক, মাওলানা মুফতী জসীমুদ্দীন, মাওলানা আনাস মাদানী, মাওলানা আব্দুর রহমান হাফেজ্জী, মাওলানা মুফতী নূরুল আমীন, মাওলানা উবায়দুর রহমান মাহবুব, মাওলানা মোশতাক আহমদ, মাওলানা নূরুল হুদা ফয়েজী, মাওলানা বাহাউদ্দীন যাকারিয়্যা, মাওলানা ছফিউল্লাহ, মাওলানা মুহাম্মাদ ইসমাইল প্রমূখ।

 

নিউজ সোর্স: যুগান্তর