স্মার্ট করার নামে ক্লাসেই চলে পর্নোগ্রাফি দেখা!

ভারতের বিহারের রাজধানী পাটনার কেভি সহায় উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয় নামের একটি স্কুলে স্মার্ট ক্লাসের নামে ক্লাসের মধ্যেই চলছে পর্নোগ্রাফি দেখা। সম্প্রতি স্কুলে প্রদেশ শিক্ষা বিভাগের আচমকা পরিদর্শনের এই বিস্ময়কর তথ্যই ওঠে এসেছে।

ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, বিহারের মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসার পরই নিতিশ কুমার শিশুদের স্মার্ট করতে বিহারের স্কুলগুলোতে স্মার্ট ক্লাস চালু করেছিল। সামনেই মাধ্যমিক পরীক্ষা। তার আগে প্রতিদিনই শিক্ষা দপ্তর থেকে স্কুলগুলোতে স্মার্টক্লাস কেমন চলছে তা দেখার জন্য আচমকা পরিদর্শন চলছে। লক্ষ্য ছিল, এই ক্লাসগুলেঅতে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কেমন থাকছে, শিক্ষকরা কিভাবে পাঠদান করছেন, সেইসব খতিয়ে দেখা। কিন্তু সেই কেঁচো খুঁড়তে গিয়েই বেরিয়ে এসেছে পর্নোগ্রাফির তথ্য।

জেলা পুলিশ কর্মকর্তা নিরজ কুমার জানান, কেভি সহায় উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সম্প্রতি পরিদর্শন করতে গিয়ে শিক্ষা দপ্তরের পরিদর্শকরা দেখেন স্মার্ট ক্লাসের সিলেবাস থাকার কথা যে পেনড্রাইভে, সেখানে একটি ফোল্ডারে প্রচুর পর্নগ্রাফিক ভিডিও মজুত করা রয়েছে। এই নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষ বা শিক্ষক-শিক্ষিকারা কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। তারপরই শিক্ষা কর্মকর্তারা বিষয়টি নিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানান।

এদিকে, মাত্র চার-পাঁচ দিন আগেই বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নিতিশ কুমার ভারতে সব ধরনের পর্নগ্রাফিক ওয়েবসাইট নিষিদ্ধ করার দাবি তোলেন। তার বক্তব্য ছিল, এই ধরনের ভিডিওগুলোর জন্যই ভারতে নারীদের বিরুদ্ধে অপরাধের সংখ্যা বাড়ছে। এবার তার রাজ্যেরই অন্যতম নামী স্কুলে শিশুদের স্মার্ট করার নামে পর্নোগ্রাফি দেখানোর অভিযোগ ওঠায় বেজায় বিপাকে পড়েছেন তিনি। এখনো এই বিষয়ে নিতিশ কোনো মন্তব্য করেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares