নির্ভয়ার ৪ ধর্ষকের ফাঁসির জন্য জল্লাদ চাইল তিহার জেল

আগামী ১ ফেব্রুয়ারি নির্ভয়া ধর্ষণ মামলার চার আসামির ফাঁসি কার্যকরের তারিখ নির্ধারণ করেছেন আদালত।

দিল্লির তিহার জেল কর্তৃপক্ষ এ চার আসামির ফাঁসির জন্য উত্তরপ্রদেশের জল্লাদ পবনকে চেয়েছে। খবর এনডিটিভির।

উত্তরপ্রদেশের জেল কর্মকর্তা আনন্দ কুমার এ কথা জানিয়েছেন। তিনি জানান, ৩১ জানুয়ারি ও ১ ফেব্রুয়ারি এই দুদিনের জন্য পবনকে চাওয়া হয়েছে।

মিরাটের বাসিন্দা পবন আগেই জানিয়েছিলেন– তিনি নির্ভয়াকাণ্ডের অপরাধীদের ফাঁসিতে ঝোলাতে প্রস্তুত।

তিনি বলেছিলেন– ওই অপরাধীদের ফাঁসিতে ঝোলানো হলে আমি, নির্ভয়ার বাবা-মা এবং দেশের সবাই সত্যিই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলব। এ ধরনের মানুষকে ফাঁসিতেই ঝোলানো উচিত।

গত সপ্তাহে দিল্লির এক আদালত নতুন করে চার অপরাধীর মৃত্যু পরোয়ানা জারি করেন। ১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৬টায় তাদের ফাঁসি হওয়ার কথা।

চার অপরাধী— বিনয়, অক্ষয়, পবন ও মুকেশ দিল্লিতে ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে এক ২৩ বছরের তরুণীকে বাসের মধ্যে ধর্ষণ ও নৃশংস অত্যাচার করে। কয়েক দিন পর মেয়েটি মারা যায়। গোটা দেশ গর্জে উঠেছিল এ ঘটনার নির্মমতার বিরুদ্ধে। ২২ জানুয়ারি সকাল ৭টায় দিল্লির তিহার জেলে ফাঁসিতে ঝোলানোর কথা ছিল অপরাধীদের। কিন্তু আসামি মুকেশ নতুন করে ফাঁসি মওকুফের আর্জি জানিয়ে আবেদন করায় মৃত্যুদণ্ড কার্যকর পিছিয়ে যায়।

নিয়মানুযায়ী, রাষ্ট্রপতি অপরাধীর প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করে দেয়ার পর দুই সপ্তাহ সময় দিতে হয়। গত শুক্রবার রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ গণধর্ষণের অন্যতম অপরাধী মুকেশ সিংহের দায়ের করা প্রাণভিক্ষার আবেদন প্রত্যাখ্যান করে দেয়ার কয়েক ঘণ্টা পরেই নতুন করে এ ফাঁসির পরোয়ানা জারি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.