নামাজের সময় ইয়েমেনের সেনা ক্যাম্পে হামলা, নিহত ৬০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ইয়েমেনের একটি সেনা ক্যাম্পে হামলা চালিয়ে ৬০ জনকে হত্যা করেছে ইরান-সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীরা। আল অ্যারাবিয়া জানিয়েছে, হামলার সময় ক্যাম্পের মসজিদে সেনারা মাগরিবের নামাজ পড়ছিলেন।

খবরে বলা হয়, ইয়েমেনের মারিব শহরে ড্রোনের সাহায্যে মিসাইল ছোড়ে হামলাকারীরা।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল জানিয়েছে, হুথি বিদ্রোহীরা আরব জোটের একটি সামরিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে হামলা চালালে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমসহ নানা সূত্র থেকে পাওয়া খবরে জানা গেছে, হুতিদের হামলায় ৬০ জনের বেশি সেনা নিহত হয়েছে। মা’রিবের সামরিক হাসপাতাল থেকে আহতদের চিকিৎসার জন্য রক্ত দেয়ার আবেদন জানানো হয়েছে।

এদিকে, হামলার ব্যাপারে আরব জোটের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনো বিবৃতি দেয়া হয় নি। যদি বিষয়টি নিশ্চিত হয় তাহলে এটি হবে আরব জোটের জন্য সাম্প্রতিক কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী হামলা।

২০১১ সালে আরব বসন্তের প্রভাবে ইয়েমেনে গণবিক্ষোভের মুখে ক্ষমতা ছাড়েন দীর্ঘদিনের স্বৈরশাসক আলী আবদুল্লাহ সালেহ। বিপ্লবের পর ইয়েমেনের বিভিন্ন পক্ষের মধ্যে সংঘাত ছড়িয়ে পড়লে ২০১৪ সালে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের স্বীকৃতি প্রেসিডেন্ট আবদ-রাব্বু মানসুর হাদির সরকারের কাছ থেকে রাজধানী সানাসহ দেশটির বিশাল অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নেয় উত্তরাঞ্চলীয় হুথি বিদ্রোহীরা।

২০১৫ সালে সৌদি নেতৃত্বের সামরিক জোট হাদির সরকারকে পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করতে ইয়েমেনে আগ্রাসন চালালে চলমান গৃহযুদ্ধের সূচনা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.