ধর্ষক যখন বাবা!

পিতার পাশবিক নির্যাতনের শিকার হলো তারই কন্যা। ১৭ বছরের কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগ এনে বগুড়া শহরের নারুলী এলাকার সলিম উদ্দিনের পুত্র হোটেল শ্রমিক বেলাল হোসেনকে (৫০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম বদিউজ্জামান এ বিষয়ে নিশ্চিত করেন।

বদিউজ্জামান জানান, বগুড়ার গাবতলী উপজেলার রামেশ্বরপুর গ্রামের হোটেলে শ্রমিক বেলাল হোসেন শহরের নারুলীতে ভাড়া নিয়ে বসবাস করত। কয়েক বছর আগে বেলালের সাথে তার স্ত্রীর ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এ সময় তার স্ত্রী দুই সন্তানের মধ্যে পুত্রসন্তানকে নিয়ে চলে যায়। কন্যাসন্তান তার বাবার কাছে থাকত। দুই বছর আগে বেলালের মেয়ের বিয়ে হয়। কিন্তু সেই বিয়ে টেকেনি।

জানা যায়, গত জানুয়ারি মাসের ৩ তারিখে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এরপর থেকে মেয়েটি তার বাবার কাছে থাকত। বেলাল বুধবার ভোররাতে মেয়েকে ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে মেয়েটি চিৎকার করলে তার বাবা পালিয়ে যায়। এরপর ঘটনাটি জানতে পেরে প্রতিবেশীরা পুলিশে সংবাদ দেয়। পুলিশ মেয়ের কাছ থেকে ঘটনার সত্যতা পাওয়ার পর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে বেলালকে গভীর রাতে গ্রেপ্তার করে। এরপর বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। পুলিশের কাছে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বেলাল। বৃহস্পতিবার দুপুরে মেয়েটিকে মেডিক্যাল পরীক্ষা করার পর জবানবন্দি দেওয়ার জন্য তাকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়। এ ব্যাপারে মেয়েটি বাদী হয়ে বগুড়া সদর থানায় একটি মামলা করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares