এবার মার্কিন ড্রোন হামলায় আফগানিস্তানে নিহত ৬০

আফগানিস্তানের হেরাত প্রদেশে তালেবানদের অবস্থান লক্ষ্য করে ব্যাপক বিমান হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ্যবিহীন বিমানগুলো। এসব হামলায় ৬০ জনের বেশি বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে একজন তালেবান কমান্ডারও রয়েছেন। আফগান সরকার বেসামরিক নাগরিক হতাহতের তদন্ত শুরু করেছে। স্থানীয় সসকারি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা।

বুধবারের হামলা সম্পর্কে হেরাত প্রদেশের গভর্নরের এক মুখপাত্র জানায়, আফগানিস্তানের পশ্চিমাঞ্চলীয় হেরাত প্রদেশের তালেবান শীর্ষ কমান্ডারকে লক্ষ্য করে চালানো মার্কিন ড্রোন হামলায় ৬০ জনেরও বেশি বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। মুখপাত্র জাইলানি ফরহাদ বৃহস্পতিবার আরো বলেন, ইরান সীমান্তের নিকটবর্তী শিন্দান্দ জেলায় মোল্লা নাঙ্গায়াল নামে এক তালেবান কমান্ডার নিহত হয়েছেন। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে হেরাতের প্রাদেশিক কাউন্সিলের উপপ্রধান টোরাইলাই তাহিরি স্থানীয় সংবাদমাধ্যম টোলো নিউজকে জানিয়েছেন, হামলায় ৬০ জনেরও বেশি বেসামরিক মানুষ নিহত ও আহত হয়েছেন।

হেরাত প্রাদেশিক কাউন্সিলের সদস্য ওয়াকিল আহমদ করখির বরাত দিয়ে টোলো নিউজ জানিয়েছে, বুধবার মার্কিন ড্রোন হামলায় মোল্লা নাঙ্গায়াল যোদ্ধাদের সঙ্গে বহু বেসামরিক লোক হতাহত হয়েছেন। আফগানিস্তানে ন্যাটোর মিশন রেজলিউট সাপোর্ট, এএফপি নিউজ এজেন্সিকে জানিয়েছে, এটি আফগান বাহিনীর সমর্থনে একটি প্রতিরক্ষামূলক বিমান হামলা। ২০১৩ সালে তালেবান নেতা মোল্লা ওমরের মৃত্যুর পর নাঙ্গায়ালে তালেবানের মূল শাখা থেকে বিচ্ছিন্ন হন এবং মোল্লা রসুল নামে পরিচিত এক কমান্ডারের নেতৃত্বে একটি ছোট ভাঙা দলে যোগ দেন।

এদিকে এক তালেবান প্রতিনিধির বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকা বলছে, ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার উত্তেজনা আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠার কার্যক্রমে কোনো বাধা সৃষ্টি করবে না। ইরাকের দুটি মার্কিন ঘাঁটিতে ইরান ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর মাত্র একদিন পরই এ কথা বলেছেন তালেবানদের আলোচক দলের সদস্য সুহালি শাহিন। আফগানিস্তানে গৃহযুদ্ধ বন্ধে দীর্ঘদিন ধরে তালেবান প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে ওয়াশিংটন। তবে ওই দীর্ঘ আলোচনার এখনও কোনো সুফল চোখে পড়ছে না। মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা বহাল থাকা সত্ত্বেও আফগান সেনা ও সরকারি কর্মকর্তাদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা বন্ধ করেনি তালেবানরা। অন্যদিকে দেশটিতে তালেবানদের অবস্থান লক্ষ্য করে নিয়মিত হামলা চালিয়ে যাচ্ছে মার্কিন যুদ্ধবিমানগুলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares