আল জাজিরা’র মসজিদের ইমামের দায়িত্বে বাংলাদেশি

মধ্যপ্রাচ্যের ছোট্ট মুসলিম দেশ কাতার। দেশটির বিভিন্ন মসজিদে মোয়াজ্জেম, ইমাম ও খতিবের পেশায় নিয়োজিতদের বড় অংশই বাংলাদেশি। দুই হাজার চারশ’র মতো মসজিদে প্রায় এক হাজার তিনশ বাংলাদেশি ইমাম, মোয়াজ্জেম ও খতিব বর্তমানে কাতারে কর্মরত। প্রবাসের মাটিতে

বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন বাংলাদেশের আলেম সমাজ। কাতারিদের কাছে মুসলিম রাষ্ট্রের নাগরিক হিসেবে বাংলাদেশি ইমাম-মোয়াজ্জেমরা বেশ সম্মানিত। বাংলাদেশিদের মেধা, আচরণ, মনোমুগ্ধকর তেলাওয়াত, শুদ্ধ আরবি ও অন্যান্য সাফল্যের কারণে বাংলাদেশি ইমাম-মোয়াজ্জেমদের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে কাতারে।

সারাবিশ্বে নাম করা আল জাজিরা টেলিভিশন চ্যানেলের মসজিদের ইমামের দায়িত্বে আছেন বাংলাদেশি হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ ইসাক বিন মোহাম্মদ আলী লাহোরি। বাংলাদেশের নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার সফরিয়া গ্রামে তার বাড়ি। পিতা মাওলানা মোহাম্মদ আলী লাহোরি। হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ ইসাক বিন মোহাম্মদ আলী লাহোরি স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে কাতারেই আছেন। দুই ছেলে কাতার স্কুলে লেখাপড়া করে আর মেয়ে ছোট। তিনি ২০০৭ সালে পরীক্ষার মাধ্যমে বিনা খরচে ইমাম হিসেবে কাতার আসেন। হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ ইসাক বিন

মোহাম্মদ আলী লাহোরি বলেন, ‘কাতার সরকার আমাদের বেতনের বিষয়ে খেয়াল রাখছেন। কাতারের নাগরিকদের মতোই আমাদের সম্মান করা হয়। কাতারের অধিকাংশ মসজিদের মধ্যে ‘আলহামদুলিল্লাহ’ আমাদের বাংলাদেশি ভাইয়েরা ইমাম-মোয়াজ্জেম, খতিব। কাতার সরকার আমাদের প্রতি তাদের অনেক বেশি আত্মবিশ্বাস।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

shares